দাম.কম.বিডি

দাম.কম.বিডি is the first online shopping database in Bangladesh. You can search the most suitable product on the best available price within Bangladesh!

Blog Category

 Writers

Currently, dam.com.bd blog is written by our team members. But we are recruting more gadget writers who wants to contribute the knowledge and share with others! If you are interested in joining dam.com.bd blog writer, please send us hello from here.

  • আমার নাম শেখ আহমার মেহেতাব। আমি বর্তমানে দাম.কম.বিডিতে বিজনেস ডেভেলপমেন্ট টিমের একজন মেম্বার হিসেবে কর্মরত আছি। আমি ব্রাক বিশ্ববিদ্যলয় থেকে বি.বি.এ সম্পন্ন করেছি।প্রযুক্তি ভালোবাসি আর সবসময় নতুন কিছুর সন্ধানে থাকি।অনেকের কাজে লাগতে পারে এমন কিছুজানানোর চেষ্টা করি।

  • দাম.কম.বিডি একটি পরিশ্রমী, সৃজনশীল ছোট্ট টিম । দামকমের একমাত্র মিশন হলো কিভাবে মানুষের অপ্রয়োজনীয় শপ্পিং-ব্যয় কমানো যায় এবং শপিং হ্যাসল কমিয়ে শপিংকে করা যায় আরও উপভোগ্য ! দামকম সবসময়ই আপনাদের সমালোচনামূলক ফিডব্যাক আশা করে !

Join as a Writer

১৩ থেকে ২০ হাজার টাকার মধ্যে বিবেচনায় রাখতে পারেন যে স্মার্টফোনগুলো

2017-04-09 12:20:30 Author : দাম.কম.বিডি Team

Summary of this article

In our market, there are many brands and models for smartphones; which makes us little confuse to choose the right device. Here, in this article; we talk about best smartphone between 13 thousand to 20 thousand taka on basis of four important parameter. Those are Performance, Camera, Dispaly and Battery backup. Hope it helps you to choose the right model within your budget.


বর্তমান বাজারে হাজারো ব্র্যান্ড আর মডেলের স্মার্টফোনের ভিড়ে কোন ফোনটি কিনবেন এ নিয়ে দ্বিধান্বিত হওয়াটা মোটেও অস্বাভাবিক নয়। এ বিষয়ে আরেকটু সহজ ধারণা প্রদানের জন্যই আজকের লেখাটির অবতারণা। এ লেখাটিতে পারফরম্যান্স, ক্যামেরা, ডিজাইন ও ডিসপ্লে আর ব্যাটারী ব্যাকআপ - এই চারটি গুরুত্বপূর্ণ সুবিধার বিচারে ১৩ থেকে ২০ হাজার ভেতরে জনপ্রিয় স্মার্টফোনগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য প্রদানের চেষ্টা করা হচ্ছে। ফোনের দামসহ বিস্তারিত তথ্যের জন্য মডেল নম্বরের সঙ্গে প্রদত্ত লিংকগুলো ভিজিট করতে পারেন। আশা করি, লেখাটি আপনার কাঙ্খিত মডেল নির্বাচনে সাহায্য করবে। এবার আসুন, ঢ়ুকে পড়া যাক মূল আলোচনায়:

পারফরম্যান্স:

নূন্যতম ১.৬ গিগাহার্জ ক্লকস্পিডের আট বা তার অধিক কোর সমৃদ্ধ প্রসেসর সঙ্গে ২ জিবি বা ততধিক র‍্যাম থাকলে সে ফোনগুলো থেকে একটা ভাল পারফরম্যান্স আশা করা যায়। যারা স্মার্টফোনে গেম খেলতে এবং ইন্টারনেট সার্ফ করতে পছন্দ করেন তাদের ক্ষেত্রে এ ধরণের ফোনগুলোর প্রতি নজর রাখা উচিৎ। এছাড়া ভারী এ্যাপ্লিকেশনের ব্যবহার করতে চাইলে বা প্রফেশনাল কাজের ক্ষেত্রেও এই ধরণের ফোনগুলোর বিষয়ে প্রস্তাব করা যায়।

আমাদের বাজারে Xiaomi ব্র্যান্ডের স্মার্টফোনগুলো রিলিজ হবার পর ২০ হাজারের মধ্যে বেশ কয়েকটি ভাল পারফরম্যান্স হ্যান্ডসেটের কথা উল্লেখ্য। এদের মধ্যে Redmi 4 Prime, Redmi Note 4X এবং Redmi Pro ফোনগুলোকে বিবেচনায় রাখতে পারেন। উল্লেখিত প্রতিটি ফোনেই ২.০ গিগাহার্জ ক্লকস্পিড সমৃদ্ধ অক্টা-কোর চিপসেট এবং ৩ জিবি র‍্যাম ব্যবহৃত হয়েছে। Samsung ব্র্যান্ডের ফ্যান হলে Galaxy J7 Prime ফোনটিকে বিবেচনায় রাখতে পারেন। ১.৬ গিগাহার্জের অক্টা-কোর প্রসেসর, Mali-T830MP2 জিপিইউ আর ৩ জিবি র‍্যামের এই ফোনটি গেমিং আর ইন্টারনেট সার্ফিংয়ের ক্ষেত্রে বেশ ভাল সাপোর্ট প্রদানে সক্ষম। Galaxy J5 Prime ফোনটির র‍্যাম ২ জিবি হলেও এটা আপনার প্রাত্যহিক প্রয়োজন মেটানোর জন্য যথেষ্ট। এই তালিকায় পিছিয়ে নেই Asus ব্র্যান্ডটিও। এ ব্র্যান্ডের Zenfone 3 Max ZC520TL আর Zenfone Selfie ZD551KL ফোনদু’টিতে রয়েছে ৩ জিবি র‍্যাম আর ১.৭ গিগাহার্জ অক্টা-কোর প্রসেসর। বেশ কিছুদিন আগে রিলিজ করলেও Zenfone 2 ZE551ML ফোনটির ৪ জিবি র‍্যাম সমৃদ্ধ ভেরিয়েন্টটি বাজারে এখনও খুবই জনপ্রিয়। তবে, আমাদের বাজারে এই ফোনটি খুব কম থাকায় দাম কিছুটা বেশি হতে পারে।

এছাড়া Huawei GR5 Mini আর HTC Desire 728 ফোনদুটিও ২০ হাজার রেঞ্জের মধ্যে ভাল পারফরম্যান্সের জন্য বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। অপারেটিং সিস্টেমও ফোনের পারফরম্যান্স নির্ধারণে একটা উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে। উপরে উল্লেখিত সবগুলো ফোনই কিন্তু Android v6.0, (Marshmallow) অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা পরিচালিত।


ক্যামেরা:

আমাদের দেশে অনেক ক্রেতাই রয়েছেন, যারা ফোনের পারফরম্যান্স থেকেও ক্যামেরার গুণমান মানকেই বেশি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করে থাকেন। বর্তমান সময়ের বেশিরভাগ ফোনেই ১৩ মেগাপিক্সেল বা তার চেয়ে বেশি রেজ্যুলেশনের সেন্সর ব্যবহার করে থাকে। এর সঙ্গে অটোফোকাস, এইচডিআর বা ফেইস ডিটেকশনের মত ফিচারগুলো ক্যামেরার মান নির্ধারণের জরুরী একক। শুধু ভাল ছবি তোলার জন্যই নয়, ভাল ভিডিও আউটপুট পেতে চাইলেও এ ধরণের ফোনগুলো নির্বাচন করার পরামর্শ থাকবে।

ভাল ক্যামেরার ফোন হিসেবেও Xiaomi ব্র্যান্ডের Redmi Pro ফোনটিকে বিবেচনায় রাখতে পারেন। ডুয়েল 13 MP ক্যামেরা আর এইচডি ভিডিও রেকর্ডিং সুবিধা ফোনটিকে সময়ের অন্যান্য মডেলের তুলনায় খানিকটা এগিয়ে রেখেছে। নজরে রাখুন Redmi Note 4X মডেলটিকেও। ২০ হাজার টাকার চেয়ে দাম কিছুটা বেশি হলেও Xiaomi Mi 5 ফোনটির 16 MP ক্যামেরার পারফরম্যান্স বেশ ভাল। বাজেট সংকুলান করতে পারলে এ মডেলটিকে ভাল পারফরম্যান্সের জন্যও ক্রয়তালিকায় রাখতে পারেন। Asus ব্র্যান্ডটিরও ভাল ছবি তুলতে সক্ষম বেশ কয়েকটি স্মার্টফোন মডেল আমাদের বাজারে ভাল জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এদের মধ্যে ZenFone 2 Laser ZE550KL, Zenfone Selfie ZD551KL এবং Zenfone 3 Max ZC520TL মডেলগুলোর বিষয়ে বিশেষভাবে উল্লেখ করা যায়। উল্লেখিত প্রতিটি মডেলে ব্যবহৃত 13 MP সেন্সরের সঙ্গে উন্নত এ্যাপারচার আর দ্রুততম লেজার অটোফোকাস প্রযুক্তি এই ফোনগুলোকে অন্যান্য ব্র্যান্ডের তুলনায় কিছুটা বাড়তি সুবিধা প্রদান করেছে। এছাড়া Samsung ব্র্যান্ডের স্মার্টফোনগুলোর ক্যামেরার মানও যথেষ্ট ভাল। ২০ হাজার টাকার ভেতরে সবগুলো ফোনেই প্রায় কাছাকাছি ধরণের ক্যামেরা-প্রযুক্তি ব্যবহার হয়েছে। এর মধ্যে Galaxy J7 Prime মডেলটি ছাড়াও Galaxy A3 (2016) এবং Galaxy J5 Prime মডেল দুটো আপনার কাঙ্খিত মান নিশ্চিত করতে সক্ষম।

২০ হাজার রেঞ্জ থেকে কিছুটা এগিয়ে যাবার সামর্থ্য থাকলে Oppo F1S এবং Huawei GR5 2017 ফোন দুটোকেও চিন্তায় রাখতে পারেন। Oppo F1S ফোনের দুর্দান্ত সেল্ফি আর Huawei GR5 2017 এর ডুয়েল ক্যামেরা সাপোর্ট নিঃসন্দেহে আপনাকে মুগ্ধ করবে।


ডিজাইন এবং ডিসপ্লে:

স্মার্টফোনে ইন্টারনেট সার্ফিং, মুভি দেখা বা গেমিং- যাই করতে চান না কেন, ভালো ডিসপ্লে কোয়ালিটির কোন বিকল্প নেই। এছাড়া সুন্দর ও মজবুত ডিজাইন আপনার ফোনটিকে দৃশ্যমান সৌন্দর্যের পাশাপাশি বাইরের আঘাত থেকেও রক্ষা করবে। তাই স্মার্টফোন নির্বাচনের ক্ষেত্রে এ বিষয়টিও সমান গুরুত্ব দাবী করে।

মজবুত গড়নের জন্য Samsung ব্র্যান্ডটি আমাদের বাজারের অন্যতম সেরা। Galaxy J5 Prime এবং Galaxy J7 Prime ফোনদুটির চমৎকার ডিজাইন আর মেটাল বডি আপনার ভালো না লাগার কোন কারণ নেই। তবে J7 Prime এর ডিসপ্লে J5 Prime এর তুলনায় 0.50 ইঞ্চি বড়। স্বাভাবিকভাবেই মাল্টিমিডিয়া ব্যবহারের ক্ষেত্রে এ ফোনটি অপেক্ষাকৃত ভালো সাপোর্ট প্রদান করবে। এছাড়াও উল্লেখিত দামের মধ্যে Galaxy J7 (2016) বা Galaxy On7 Pro ফোনদুটির ডিসপ্লেও বেশ চমৎকার। Xiaomi ব্র্যান্ডের সাড়ে ৫ ইঞ্চির চেয়ে বড় ফোনগুলোর মধ্যে Redmi Note 4, Redmi Pro এবং Redmi Note 4X বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। এই তিনটি মডেলেই ব্যবহার হয়েছে ৪০১ পিক্সেল ঘনত্ব সম্বলিত হাই ডেফিনিশন ডিসপ্লে। এই মডেল তিনটির নির্মাণশৈলীও বেশ চমৎকার। ২০ হাজার আওতাধীন Asus ব্র্যান্ডের ফোনগুলোর মধ্যে ZenFone 2 Laser ZE550KL, Zenfone Max ZC550KL, Zenfone Selfie ZD551KL এবং Zenfone 2 ZE551ML এ চারটি মডেলের ডিসপ্লে সাড়ে ৫ ইঞ্চি। তবে ZD551KL এবং ZE551ML ফোনদুটোতে রয়েছে ফুল এইচডি ডিসপ্লে রেজ্যুলেশন আর পিক্সেল ঘনত্ব ৪০০ পিপিআই এর অধিক। HTC ব্র্যান্ডের মধ্যে Desire 820G+ এবং Desire 728 মডেল দুটিকেও ভালো ডিসপ্লের জন্য বিবেচনায় রাখা যেতে পারে।


ব্যাটারী ব্যাকআপ:

দীর্ঘ ব্যাটারী ব্যাকআপ যে কতটা প্রয়োজনীয়, সেটা একজন স্মার্টফোন ব্যবহারকারী মাত্রই অনুধাবন করতে পারেন। মোটা দাগে বলা যায়, 3000 mAh বা এর অধিক ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারী সম্বলিত স্মার্টফোনগুলো থেকে একটা ভালো ব্যাকআপ পাওয়া সম্ভব। তবে, অনেক ব্র্যান্ডের ব্যাটারী সেভিং ফিচার বা উন্নত পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট প্রযুক্তির কারণেও ব্যাটারী ব্যাকআপের ক্ষেত্রে কিছুটা বাড়তি সুবিধা পাওয়া যায়।

Samsung ব্র্যান্ডের প্রায় প্রতিটি ফোনেই আলট্রা পাওয়ার সেভিং ফিচার থাকায় প্রয়োজনের সময় চার্জ সংরক্ষণের ক্ষেত্রে এটা খুবই জরুরী ভূমিকা পালন করে। Galaxy On7 Pro এবং Galaxy J7 Prime ফোনদুটিতে ব্যাটারী ব্যবহার হয়েছে যথাক্রমে Li-Ion 3000 mAh এবং 3300 mAh ব্যাটারী। ব্যাটারীর বিষেয় একটুও পিছিয়ে নেই Xiaomi ব্র্যান্ডটি। Redmi Note 4, Redmi 4 Prime, Redmi Pro এবং Redmi Note 4X- এই চারটি ফোনেই ব্যবহার করা হয়েছে 4000 mAh এর অধিক ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারী। বাড়তি সু্বিধা হিসেবে থাকছে ব্র্যান্ডের নিজস্ব পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট আর্কিটেক্চার। Asus Zenfone Max ZC550KL মডেলটির Li-Po 5000 mAh ব্যাটারী ব্যাকআপ এক কথায় অবিশ্বাস্য! এছাড়াও এ ব্র্যান্ডের ZenFone 2 Laser ZE550KL, Zenfone 2 ZE551ML, Zenfone Selfie ZD551KL এবং Zenfone 3 Max ZC520TL ফোনগুলোতে রয়েছে 3000 mAh এর বেশি ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারী।

এবার আপনার প্রয়োজনীয় সুবিধার কথা মাথায় রেখে নিজেই নির্বাচন করুন আপনার কাঙ্খিত হ্যান্ডসেট। উপরের আলোচনার ভিত্তিতে বলা যায়- Xiaomi ব্র্যান্ডের Redmi Pro, Redmi Note 4X; Samsung ব্র্যান্ডের Galaxy J7 Prime বা Asus ব্র্যান্ডের ZenFone 2 Laser ZE550KL, Zenfone Selfie ZD551KL ফোনগুলো যে কোন বিচারেই ভাল ফোন হিসেবে বিবেচিত হতে পারে। নিয়ত পরিবর্তনশীল বাজারদরের কারণেই এ লেখাটিতে কোন মডেলেরই দাম উল্লেখ করা হয়নি। তবে প্রতিটি পণ্যের সঙ্গে প্রদত্ত লিংকগুলো থেকেই পণ্যের দাম এবং বিস্তারিত স্পেসিফিকেশন সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য পেয়ে যাবেন।

About the Author


দাম.কম.বিডি Team

দাম.কম.বিডি একটি পরিশ্রমী, সৃজনশীল ছোট্ট টিম । দামকমের একমাত্র মিশন হলো কিভাবে মানুষের অপ্রয়োজনীয় শপ্পিং-ব্যয় কমানো যায় এবং শপিং হ্যাসল কমিয়ে শপিংকে করা যায় আরও উপভোগ্য ! দামকম সবসময়ই আপনাদের সমালোচনামূলক ফিডব্যাক আশা করে !

Are you gadget geek? Then be our blogger! Give us contact from HERE